আপনি যদি অনলাইনে টাইপিং কাজ করার জন্য খোঁজ করছেন তবে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন।

আপনি এখানে অনলাইনে টাইপিং কাজগুলি সম্পর্কে জানতে পড়ুন।

টাইপিং কাজ

অনলাইনে আমি ২০১২ সাল থেকে টাইপিং কাজ করছি। আমাকে অনলাইনে সব ধরণের কাজ খুঁজে বের করতে অনেক বেশি সময় লেগেছে। সকল কিছুর পরে আমি এখন সফল কাজ করতে। তবে আমি বছরের পর বছর অনেক কাজ পেয়েছি যা সত্যিই আমাকে অবাক করেছিল। তবে একই সাথে কিছু কাজ যা প্রতারণা করে। যদিও অনলাইনে কাজের জন্য অনেক কিছু অজানা রয়েছে। তবে আপনি এই নিবন্ধে আলোচনা করতে পারেন। কিন্তু এখানে আমরা কেবল টাইপিং কাজগুলিতে ফোকাস করব।

এখানে কি কোন অনলাইন টাইপিংয়ের কাজ আছে?

এখানে অনলাইন টাইপিংয়ের কাজ আছে, তবে খুব কম। এমন একটি কোম্পানি খোঁজ করুন যা আপনাকে নিয়মিত কাজ করতে সুযোগ দেয় এবং আপনাকে যথাসময়ে অর্থ প্রদান করে তারা, তবে এখনও আপনি এটি করতে পারেন।

আপনি অনলাইন টাইপিং কাজগুলি কোথায় পাবেন

বাসা থেকে টাইপিং কাজ সন্ধানে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হ’ল – ফ্রি রেজিস্ট্রেশন।

যদি কোনও কোম্পানির বিনিয়োগ এবং রেজিস্ট্রেশন ফি ছাড়াই টাইপিংয়ের কাজ প্রদান করে তবে তারা যদি নিবন্ধকরণ ফি চেয়ে থাকে, তবে কেবল এই কোম্পানিটিকে এড়িয়ে যাবেন।

দীর্ঘ অভিজ্ঞতা থেকে শিখা আমি ১০ বছরে জানতে পেরেছি যে ৩টি উপায় আছে যেগুলি আপনি বাসা থেকে অনলাইন টাইপিং কাজগুলি খোঁজ করতে পারেন।

কাজের পোর্টালে টাইপিংয়ের কাজ খোঁজ করা

নাওক্রি, গ্লাসডোর, মনস্টার, শাইন ইত্যাদি বিভিন্ন কাজের পোর্টাল আপনাকে আপনার এলাকায় টাইপিংয়ের কাজগুলি খুঁজে পেতে ইতিবাচক ভূমিকা রাখে। আপনি কেবল এই ওয়েবসাইটগুলিতে যান এবং “অনলাইন টাইপিং কাজগুলি” টাইপ করুন এবং দেখুন যে তারা আপনাকে কী ধরনের কাজের ফলাফল উপস্থাপন করে। এটি খুব কার্যকর নয় তবে এখনও অনলাইনে টাইপিংয়ের কাজ খোঁজ করার খুব ভাল একটি উপায়।

ফ্রিল্যান্সিং সাইটগুলি খোঁজ করা হচ্ছে

আপনি ফিন্যান্সিং যেমনঃ আপওয়ার্ক, ফাইভার, পিপলপারহাওয়ারের মতো ফ্রিল্যান্সিং সাইটগুলিতেও যেতে পারেন কাজের খোঁজ করতে। যেখানে সব ধরণের কাজ করা সম্ভব।

এছাড়াও আপনি টাইপিংয়ের কাজগুলি খুঁজে পেতে পারেন কিনা তা দেখুন?

আপনি বিনিয়োগ ছাড়াই বাসা থেকে অনলাইনে টাইপিং কাজ সহ বিভিন্ন ধরণের ডেটা এন্ট্রি কাজের খোঁজ করতে অ্যামাজন এমটুর্কে যেতে পারেন। আরও তথ্য জানার জন্য এখানে যান যেমনঃ ইনবক্সডোলারস, সোয়াগবাক্সের মতো সাইটগুলিও রয়েছে যা আপনাকে বিনিয়োগ ছাড়াই বাসা থেকে অনলাইনে টাইপিংয়ের ছোট ছোট কাজ দেয় তবে উপার্জনটি হ্রাস হয় এবং আপনি এগুলি এড়িয়ে যেতে পারেন। এটি তেমন খুব কার্যকর নয় তবে আগেরটির চেয়ে এখনও ভাল!

সরাসরি কোম্পানির খোঁজ করুন।

তৃতীয় উপায়টি হ’ল যে, অনলাইনে টাইপিং কাজ খোঁজ করার সবচেয়ে ভাল উপায়। সরাসরি ইন্টারনেটে একটি কোম্পানি খুঁজে বের করা! আপনি গুগলে যান সার্স ইঞ্জিনে, আপনার কাজের জন্য কীওয়ার্ডগুলি টাইপ করুন, একের পর এক আপনার কাজের ফলাফলের মধ্য দিয়ে আপনি খুঁজে পাবেন এবং আপনি ম্যানুয়ালি রিসার্স করার জন্য খোঁজ করুন।

আপনি কেবলমাত্র তাদের কোম্পানি সম্পর্কে জানতে ওয়েবসাইটে যান না, তবে আপনি ফোনে তাদের সাথে কথা বলুন কোম্পানির সকল বিষয়ে এবং কাজের ধরণ, রেজিস্ট্রেশন ফি, অর্থ প্রদান, দক্ষতা ইত্যাদির মতো ছোট ছোট বিবরণও নির্ধারণ করুন।

উদাহরণস্বরূপ, অনলাইন টাইপিং কজ নিয়ে আমি কিছু রিসার্স করেছি এবং কয়েকটি ভাল মানের কোম্পানির মুখোমুখি হয়েছি যা বিনিয়োগ এবং রেজিস্ত্রসন ফি ছাড়াই বাসা থেকে আসলে খুব সহজে অনলাইন টাইপিং কাজ সংগ্রহ করছে।

কাজের প্রোফাইল: বেশিরভাগ সময় টাইপিংয়ের কাজটি খুব সহজ যেখানে আপনি ই-বুকগুলি এমএস ওয়ার্ড ডকুমেন্টে রূপান্তর করে কাজ করেন। আপনি পিডিএফ ফরমেটে ই-বুকগুলি পড়েন এবং এটি এমএস ওয়ার্ড ডকুমেন্টে সেগুলো টাইপ করেন।

যোগ্যতা: আপনার বয়স অবশ্যই ১৬ বছরের উপরে হতে হবে আর ক্লাস ১০ পাস হতে হবে সাথে আপনার ইংরেজী ভাষা ভাল ভাবে জানা থাকতে হবে। আপনি কোনও কোম্পানিতে যোগদানের আগে আপনাকে অবশ্যই ভাল করে সতর্ক হতে হবে। সর্বদা এমন সকল কোম্পানি খুঁজবেন যার অফিস রয়েছে, কোনও রেজিস্ট্রেশন ফি নেই এবং আপনি তাদের সম্পর্কে ভাল ভাবে জানতে পারেন।

অনলাইন টাইপিং কাজের ধরণ

আমার অভিজ্ঞতা থেকে আপনি অনলাইনে টাইপিংয়ের ধরণ সবচেয়ে সাধারণ যা আপনি ভারতে/বাংলাদেশে খুঁজে পেতে পারেন তা হ’ল এমএস ওয়ার্ড ডকুমেন্টে ই-বুক বা কোনও ছবির ফাইল রূপান্তরিত। আপনি পিডিএফ বা ছবির ফাইল থেকে পড়ে তা ওয়ার্ড ডকুমেন্টে টাইপ করা।

অনলাইনে টাইপিংয়ের অন্যান্য কাজ রয়েছে

১. অনুলিপি করুন এবং আটকান/Copy & Paste

এখানে আপনি মূলত একটি এমএস ওয়ার্ড ফাইল থেকে অন্য ওয়ার্ড ফাইলে অনুলিপি করেন আর কিছু বেসিক ফর্মমেটিং করেন। এখানে আপনি আরও খোঁজ করুন!

২. সার্ভের ফর্ম এবং ফর্ম পূরণ/Survey Forms and Form Filling         

আপনি অনলাইন কাজের বিভিন্ন সার্ভে ফর্ম পূরণ করুন। আপনাকে তাহলে কয়েকটি সহজ প্রশ্নোর উত্তর দিতে হবে যা ৩ মিনিটের বেশি সময় নেয় না। আপনি এখানে খোঁজ করুন।

৩. বিজ্ঞাপন পোস্টিং/Ad Posting

আপনি বিভিন্ন ধরনের সাইটগুলিতে বিজ্ঞাপন অনুলিপি করেন আর তারপর পোস্ট করেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে টাইপিংয়ের কাজগুলি প্রকৃত অনলাইন টাইপিং কাজ নয়।

৪. ক্যাপচা/Captcha

ক্যাপচা টাইপিংয়ের কাজটি কী তা আপনি ইতিমধ্যে খুব ভাল করে জানেন। আপনাকে সফটওয়্যার বা অনলাইন কোম্পানির ওয়েবসাইটে ক্যাপচা টাইপ কাজ করতে হবে।

৫. ডেটা এন্ট্রি কাজ/Data Entry Work

অনলাইনে ডেটা এন্ট্রি কাজ রয়েছে যেমনঃ ট্রান্সক্রিপশনের কাজ, এক্সেল ফাইলে ডেটা প্রবেশ করা, অনুচ্ছেদে লেখা এবং সম্পাদনা ইত্যাদি।

যোগ্যতার মানদণ্ড এবং বেসিক প্রয়োজনীয়তা/Eligibility Criteria & Basic Requirements

এই কাজটি গ্রহণ করবেন না কেক ওয়ালক হিসাবে। আপনার দক্ষতার দরকার, তা নিম্নে দেয়া হল।

ইংরেজিতে জ্ঞান থাকতে হবে

এমএস ওয়ার্ড এবং এমএস এক্সেল সম্পর্কে জ্ঞান

প্রতি মিনিটে ৩৫ টিরও বেশি শব্দ/অক্ষর টাইপ করা

৯৯% এর বেশি নির্ভুলতা থাকতে হবে

কাজের বেশিচাপ পড়লে তা দেখাশুনা এবং শেষ করার সময় নির্ধারন করা

শুরু আপনার কেবল ইন্টারনেটেরসহ একটি কম্পিউটারের প্রয়োজন।

আপনি কত টাকা উপার্জন করতে পারেন?

আপনি যদি অনলাইন টাইপিংয়ের কাজ বা ডেটা এন্ট্রি কাজের বিষয়ে সত্যিই আগ্রহী হন আর আপনার যদি ২ থেকে ৩ বছরের কাজের অভিজ্ঞতা থাকে তবে আপনি প্রতি মাসে ৳২০,০০০ টাকাও আয় করতে পারবেন।

আপনি যদি এই টাইপিং কাজের জন্য নতুন হন তবে প্রতি মাসে ১০,০০০ থেকে ১৫,০০০ টাকা আয়ের আশা করতে পারেন। তবে আপনাকে নিয়মিত ৫ থেকে ৬ ঘন্টা কাজ করতে হবে।

আপনি পিডিএফ ফাইল / ছবির ফাইলগুলি এমএস ওয়ার্ড ডকুমেন্ট বা ডেটা এন্ট্রি ওয়ার্কে রূপান্তর করা থেকে অর্থ উপার্জন করতে পারেন। যারা এই পথে নতুন তাদের জন্য এটিতে অনেক কঠিন পরিশ্রমের প্রয়োজন হয়। আর অ্যাড পোস্টিং, ফর্ম ফাইলিং এবং কপি অ্যান্ড পেস্টের মতো বাকি কাজগুলি খুব সহজ নয়।

আপনার কী না জেনে করা উচিত?

আপনার জন্য সম্ভবত এটি সাইন আপের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ। সাধারণত ইন্টারনেটে টাইপিংয়ের বেশিরভাগ কাজ কেবল স্ক্যাম হয়ে থাকে। এটি হচ্ছে খুব স্বাভাবিক যে ইন্টারনেটে নতুন কেউ এই সকল প্রতারকদের ফাঁদে পড়তে পারেন।

এখানে এমন দুটি সাইট দেওয়া আছে যা আপনার করা উচিত নয়।

প্রথমটিঃ এটি হচ্ছে বিবিগির ইনফরম্যাটিক্স প্রাইভেট নামে একটি কোম্পানি লিমিটেড। বাইরে থেকে তারা তাদের কোম্পানির ভাল সুনাম দেখায়। এই কোম্পানিটি তাদের একটি ওয়েবসাইট, একটি অফিস এবং আপনার সাথে সব সময় কথা বলতে পারেন এমন একটি ব্যক্তি রয়েছে। আমিও এমনকি তাদের  কোম্পানিতে কল করেছিলাম এবং তারা আমাকে ৯৫০০ টাকার রেজিস্ট্রেশন ফি প্রদানের পরে আমাকে তাদের কোম্পানিতে যোগদান করতে বলেছিল। তবে দুইটি কারণে তাদের কোম্পানিতে জয়েন্ট করিনি। কাজটি পেতে রেজিস্ট্রেশন ফি প্রদান করতে হবে।

তারা পোস্টটি লেখার সময় তাদের নিজেদের সাইটে ৯ টি টাইপিং কাজের তালিকাভুক্ত করেছে। তারা তাদের কোম্পানিতে রাষ্ট্রীয়ভাবে শূন্যপদ দেয়, প্রতিটি রাজ্যে একটি করে এবং ফি জমা দিতে বলে। এটি সম্ভব যে শত শত লোক একই দিন তাদের অ্যাকাউন্টে অর্থ জমা দেয় একটা ভাল আয়ের উৎস দেখিয়ে। তাদের কোম্পানিতে যদি কেবলমাত্র ১টি শূন্যপদ থাকে, অন্য ব্যক্তিরা অর্থ প্রদানের পরেও তারা তাদের কোম্পানিতে কাজ পাবেন না।

দ্বিতীয়টি নিম্নে সাইটের একটি গ্রুপ।

www.adpostjob4u.com

www.jobsstart.com

www.cyberexpo.in

যদিও তারা রেজিস্ট্রেশনের জন্য কোনও অর্থ নেয় না। কারণ এই কোম্পানি তাদের কাছে টাইপিং কাজ এটি নেই।

আমি এখানে রেজিস্ট্রেশন করেছি যে তাদের টাইপ করার কোনও কাজ নেই। কিন্তু তারা আপনার তাদের কোম্পানির আইবোলগুলি পেতে এবং গুগল অ্যাডসেন্স বিজ্ঞাপন ক্লিক থেকে ভাল কিছু অর্থ উপার্জন করতে চায় বলে। এটাই ভাল আপনার জন্য যে, এই সাইটগুলিতে যান না আর আপনি আপনার সময় নষ্ট করবেন না।

যে সাইটগুলি কোনও টাইপিংয়ের কাজ দেয় না আর রেজিস্ট্রেশন ফি চায় সেগুলি সম্পর্কে সতর্ক থাকুন। তাতে আপনার কোন অর্থ সংকট হবে না।

এই কাজগুলো কাদের জন্য?

সত্য কথা বলতে অনলাইনে টাইপিং কাজগুলো অল্প উচ্চাকাঙ্ক্ষী ব্যক্তিদের জন্য উপযুক্ত। যারা মাসিক আয়ের একটি নির্দিষ্ট পরিমাণে সন্তুষ্ট বলে মনে করেন। এখন আমি মনে করি যে, বাসায় বসে থেকে অনলাইনে টাইপিংয়ের কাজগুলি সম্পর্কে আপনার যথেষ্ট একটা ভাল ধারনা হল।

2 COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here